o ঐতিহাসিক জয় বাংলাদেশের o বিশ্বকাপে সাকিবের ব্যাক টু ব্যাক সেঞ্চুরি o ডিজিটাল পদ্ধতিতে একদিনে সব মুক্তিযোদ্ধাকে সনদ দেয়া হবে: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী o বুধবার থেকে কমতে পারে তাপপ্রবাহ o ২০৫০ সালে বিশ্বের জনসংখ্যা হবে ৯৭০ কোটি: জাতিসংঘ

আজ সোমবার, ১৭ জুন ২০১৯ |

আপনি আছেন : প্রচ্ছদ  >  বিনোদন  >  অঞ্জু ঘোষের নাগরিকত্ব নিয়ে বিতর্ক

অঞ্জু ঘোষের নাগরিকত্ব নিয়ে বিতর্ক

পাবলিশড : ২০১৯-০৬-০৭ ১৩:১৭:৩৮ পিএম

।। অনলাইন ডেস্ক ।।

বুধবার ভারতীয় জনতা পার্টিতে (বিজেপি) যোগ দেন অঞ্জু ঘোষ। এরপর থেকেই বিতর্কের সূত্রপাত। সবার মনে এখন প্রশ্ন, অঞ্জু ঘোষ কী ভারতীয়, নাকি বাংলাদেশি।

বিজেপির দাবি, অঞ্জু ভারতীয় নাগরিক। এ জন্য বৃহস্পতিবার সংবাদ সম্মেলনে অঞ্জুর পক্ষে একাধিক নথি পেশ করে বিজেপি। কিন্তু সেই নথিতে অসঙ্গতি দেখা গেছে।

বিজেপিতে যোগ দিয়ে অঞ্জু ঘোষ দাবি করেছেন, ১৯৬৬ সালে কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে তার জন্ম। এর পক্ষে বিজেপিও নথি পেশ করে।

২০০৩ সালে কলকাতা পৌরসভার থেকে প্রকাশিত তার জন্মের প্রশংসাপত্র দেখায় দলটি। তবে অনলাইনে অঞ্জুর জন্মের প্রশংসাপত্রের রেজিস্ট্রেশন নম্বরের সঙ্গে কর্পোরেশনের রেজিস্ট্রেশন নম্বরে গরমিল দেখা যায়। একই নামে দুটি রেজিস্ট্রেশনও পাওয়া গেছে।

এদিকে অভিনেত্রীর যে প্যান কার্ড দেওয়া হয়েছে, সেখানে আবার জন্ম সাল ১৯৬৭। প্রশ্ন উঠছে, এক এক জায়গায় তার এক এক রকম জন্মের তারিখ কেন? এছাড়া অনেকে আবার প্রশ্ন করেছেন, ১৯৬৬ সালে যার জন্ম, তার জন্মের প্রশংসাপত্র ২০০৩ সালে দেওয়া হলো কেন?

এদিকে অঞ্জুর যে পাসপোর্ট দেখানো হয়েছে, সেটির মেয়াদ শুরুর তারিখ রয়েছে ২০১৮ সাল। যে অভিনেত্রী দীর্ঘদিন বাংলাদেশ এবং ভারতে অভিনয় করেছেন, তার পাসপোর্ট ২০১৮ সালের হয় কী করে? বিজেপির দাবি, এটি তার শেষ জারি হওয়া পাসপোর্ট। প্রশ্ন উঠছে, তা হলে প্রথম পাসপোর্টের তথ্য কোথায়?

বাংলাদেশের একাধিক গণমাধ্যমে সাক্ষাৎকারে অঞ্জু দাবি করেছেন বাংলাদেশই হচ্ছে তার মাতৃভূমি। শুধু তাই নয়, সাংবাদিকদের সঙ্গে সাক্ষাৎকার দেওয়ার সময় তিনি ভুল সংশোধন করে বলেছেন, ‘আমার জন্ম কিন্তু চট্টগ্রামে নয়, ফরিদপুরে। তবে বেড়ে ওঠা চট্টগ্রামে।’ একাধিক ইন্টারভিউতে তিনি নিজেই এ কথা বলেছেন।

১৯৮৯ সালে নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে জুটি করে ‘বেদের মেয়ে জোছনা’-তে অভিনয় করেন অঞ্জু ঘোষ। এরপর থেকেই তিনি জনপ্রিয় হয়ে উঠেন। সেই ধাক্কা লাগে পশ্চিমবঙ্গেও। সেখানে ‘বেদের মেয়ে জ্যোৎস্না’ ছবিতে অঞ্জু ঘোষের বিপরীতে অভিনয় করেন চিরঞ্জিত। সেটিও জনপ্রিয়তা পেয়েছিল। ছবির কল্যাণে অঞ্জু ঘোষ পরিচিত হতে থাকেন পশ্চিমবঙ্গে। পরে বাংলাদেশ ছেড়ে কলকাতায় বসবাস করেন তিনি।